ধ্বনি ও বর্ণ | ধ্বনিবিজ্ঞান ও বাংলা ধ্বনিতত্ত্ব | অধ্যায় ৩ | ভাষা ও শিক্ষা

ধ্বনি ও বর্ণ | ধ্বনিবিজ্ঞান ও বাংলা ধ্বনিতত্ত্ব | অধ্যায় ৩ | ভাষা ও শিক্ষা , আমরা মুখে কথা বলি ধ্বনি সাজিয়ে, কিন্তু কাগজ ইত্যাদির ওপর লিখি বর্ণের পর বর্ণ সাজিয়ে। এমনিতে বর্ণ অর্থ রঙ, যা দিয়ে ছবি আঁকা হয়। সেদিক দিয়ে বলা যায়, বর্ণ দিয়ে ভাষায় শব্দচিত্র অঙ্কিত বা রূপায়িত হয়। ধ্বনি : : ‘কোনো ভাষার বাপ্রবাহকে সূক্ষ্মভাবে বিশ্লেষণ করলে আমরা কতগুলো মৌলিক ধ্বনি পাই। মনের ভাব প্রকাশের জন্যে মুখ থেকে যে আওয়াজ বা শব্দ বের হয় তাকে ধ্বনি বলে। যে কোনো শব্দকে ‘ধ্বনি’ বলে বিবেচনা করা যায়। যেমন : ঘণ্টা বাজার ধ্বনি, কাক ডাকার ধ্বনি, মানুষের মুখনিঃসৃত ধ্বনি ইত্যাদি।

 ধ্বনি ও বর্ণ | ধ্বনিবিজ্ঞান ও বাংলা ধ্বনিতত্ত্ব | অধ্যায় ৩ | ভাষা ও শিক্ষা

কিন্তু ব্যাকরণে শুধু মানুষের মুখনিঃসৃত অর্থবোধক আওয়াজকেই ‘ধ্বনি’ বলে। অর্থাৎ অর্থবোধক ধ্বনির সমষ্টিই ভাষার প্রধান উপাদান। কিন্তু ধ্বনি দৃশ্যমান নয়, ধ্বনি উচ্চারণীয় ও শ্রবণীয় । একজন বলে অন্যজন শোনে। সেই ধ্বনিকে, আরও স্পষ্ট করে বলতে গেলে, বাগ্‌ধ্বনিকে একটা দৃশ্যরূপ দেওয়ার জন্যই বর্ণের সৃষ্টি হয়েছে। বর্ণ : যে-সব প্রতীক বা চিহ্ন দিয়ে ধ্বনি নির্দেশ করা হয় তাকে ‘বর্ণ” বলে।

 

[৩.২] ধ্বনি ও বর্ণ | ধ্বনিবিজ্ঞান ও বাংলা ধ্বনিতত্ত্ব | অধ্যায় ৩ | ভাষা ও শিক্ষা

 

ধ্বনিগুলো মুখে উচ্চারিত হয়। তারই লিখিত প্রতীক হলো বর্ণ। বর্ণ তাই ধ্বনির লিখিত রূপ, ধ্বনি-নির্দেশক চিহ্ন বা ধ্বনির প্রতীক বা রূপচিত্র। সুতরাং ধ্বনি আর বর্ণ এক নয়। ধ্বনি আমরা মুখে উচ্চারণ করি এবং কানে শুনি, কিন্তু চোখে দেখি না। আর বর্ণ হল ধ্বনির লিখিত রূপ- যা আমরা চোখে দেখি এবং নীরবে বা সরবে পড়ি। যেমন : ‘অ’ ধ্বনির প্রতীক হল— অ বর্ণ; ‘আ’ ধ্বনির প্রতীক হল— আ বর্ণ; ‘ই’ ধ্বনির প্রতীক হল— ই বর্ণ ইত্যাদি। সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায় বলেছেন, “যে ধ্বনি’ কানে শোনা যায়, তাকে নির্দিষ্ট রূপ দিয়ে, প্রত্যক্ষ বস্তুর রূপে চোখের সামনে তুলে ধরা হয়।

 

[৩.২] ধ্বনি ও বর্ণ | ধ্বনিবিজ্ঞান ও বাংলা ধ্বনিতত্ত্ব | অধ্যায় ৩ | ভাষা ও শিক্ষা

 

ধ্বনির এই লিখিত রূপ বা চিহ্নকে বলে বর্ণ।” স্মরণ রাখবে— ধ্বনি আর বর্ণ এক নয়। ধ্বনি আমরা মুখে উচ্চারণ করি এবং কানে শুনি, কিন্তু চোখে দেখি না। আর বর্ণ হল ধ্বনির লিখিত রূপ— যা আমরা চোখে দেখি এবং নীরবে বা সরবে পড়ি। বর্ণকে হরফ বা অক্ষরও বলা হয়। অবশ্য ব্যাকরণে অক্ষরের অন্য অর্থও আছে।

[৩.২] ধ্বনি ও বর্ণ | ধ্বনিবিজ্ঞান ও বাংলা ধ্বনিতত্ত্ব | অধ্যায় ৩ | ভাষা ও শিক্ষা

আরও দেখুন:

“ধ্বনি ও বর্ণ | ধ্বনিবিজ্ঞান ও বাংলা ধ্বনিতত্ত্ব | অধ্যায় ৩ | ভাষা ও শিক্ষা”-এ 1-টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন