তুলনামূলক হাত কবিতা | নির্মলেন্দু গুণ এর কবিতা | নির্মলেন্দু গুণ

তুলনামূলক হাত কবিতাটি কবি নির্মলেন্দু গুণ এর লেখা একটি কবিতা।নির্মলেন্দু প্রকাশ গুণ চৌধুরী (জন্ম ২১ জুন ১৯৪৫, ৭ আষাঢ় ১৩৫২ বঙ্গাব্দ), যিনি নির্মলেন্দু গুণ নামে ব্যাপক পরিচিত, একজন বাংলাদেশী কবি। কবিতার পাশাপাশি তিনি গদ্য এবং ভ্রমণকাহিনী লিখেছেন ও ছবি এঁকেছেন। তার কবিতায় মূলত নারীপ্রেম, শ্রেণি-সংগ্রাম এবং স্বৈরাচার বিরোধিতা, এ-বিষয়সমূহ প্রকাশ পেয়েছে।

 তুলনামূলক হাত কবিতা | নির্মলেন্দু গুণ এর কবিতা | নির্মলেন্দু গুণ
কবি নির্মলেন্দু গুণ [ Poet Nirmalendu Goon ]

 তুলনামূলক হাত কবিতা –নির্মলেন্দু গুণ

তুমি যেখানেই স্পর্শ রাখো সেখানেই আমার শরীর

তোমার চুলের ধোয়া জল তুমি যেখানেই

খোঁপা ভেঙ্গে বিলাও মাটিকে

আমি এসে পাতি হাত, জলভারে নতদেহ আর

চোখের সামগ্রী নিয়ে ফিরি ঘরে, অথবা ফিরি না ঘরে

তোমার চতুর্দিকে শূন্যতাকে ভরে থেকে যাই

তুমি যেখানেই হাত রাখো, যেখানেই কান থেকে

খুলে রাখো দুল, কন্ঠ থেকে খুলে রাখো হার

সেখানেই শরীর আমার হয়ে ওঠে রক্তজবা ফুল

তুমি যেখানেই ঠোঁট রাখো সেখানেই আমার চুম্বন

তোমার শরীর থেকে প্রবল অযত্নে ঝরে যায়৷

আমি পোকা হয়ে পিচুটির মতো

তোমার ঐ চোখের ছায়ায় প্রতিদিন খেলা করে যাই

ভালোবেসে নিজেকে কাঁদাই

তুমি শাড়ির আঁচল দিয়ে আমাকে তাড়িয়ে দিলে

আমি রথ রেখে পথে এসে তোমারই দ্বৈরথে বসে থাকি

তোমার আশায়৷ তুমি যেখানেই হাত রাখো

আমার উদগ্রীব চিত্র থাকে সেখানেই৷ আমি যেখানেই

হাত পাতি সেখানেই অসীম শূন্যতা, তুমি নেই।

 

 তুলনামূলক হাত কবিতা | নির্মলেন্দু গুণ এর কবিতা | নির্মলেন্দু গুণ

আরও পড়ুন:

 

 তুলনামূলক হাত কবিতা | নির্মলেন্দু গুণ এর কবিতা | নির্মলেন্দু গুণ

মন্তব্য করুন