আকাশে সাতটি তারা কবিতা | জীবনানন্দ দাশের শ্রেষ্ঠ কবিতা | জীবনানন্দ দাশ

আকাশে সাতটি তারা কবিতাটি কবি জীবনানন্দ দাশ এর “জীবনানন্দ দাশের শ্রেষ্ঠ কবিতা ” সংকলনের অংশ।

 

জীবনানন্দ দাশ ছিলেন বিংশ শতাব্দীর অন্যতম প্রধান আধুনিক বাঙালি কবি, লেখক ও প্রাবন্ধিক। তিনি বাংলা কাব্যে আধুনিকতার পথিকৃতদের মধ্যে অন্যতম। জীবনানন্দের বনলতা সেন কাব্যগ্রন্থ নিখিলবঙ্গ রবীন্দ্রসাহিত্য সম্মেলনে পুরস্কৃত (১৯৫৩) হয়। ১৯৫৫ সালে শ্রেষ্ঠ কবিতা গ্রন্থটি ভারত সরকারের সাহিত্য আকাদেমি পুরস্কার লাভ করে। জীবনানন্দ দাশের বিখ্যাত কাব্যগ্রন্থগুলোর মাঝে রয়েছে রূপসী বাংলা, বনলতা সেন, মহাপৃথিবী, বেলা অবেলা কালবেলা, শ্রেষ্ঠ কবিতা ইত্যাদি।

 

আকাশে সাতটি তারা কবিতা | জীবনানন্দ দাশের শ্রেষ্ঠ কবিতা | জীবনানন্দ দাশ
কবি জীবনানন্দ দাশ, Poet Jibanananda Das

 

আকাশে সাতটি তারা কবিতা – জীবনানন্দ দাশ

আকাশে সাতটি তারা যখন উঠেছে ফুটে আমি এই ঘাসে।

বসে থাকি; কামরাঙা-লাল মেঘ যেন মৃত মনিয়ার মতাে 

গঙ্গাসাগরের ঢেউয়ে ডুবে গেছে—আসিয়াছে শান্ত অনুগত 

বাংলার নীল সন্ধ্যা—কেশবতী কন্যা যেন এসেছে আকাশে; 

আমার চোখের পরে আমার মুখের ‘পরে চুল তার ভাসে; 

পৃথিবীর কোনাে পথ এ কন্যারে দেখে নি কো—দেখি নাই অত 

অজস্র চুলের চুমা হিজলে কাঁঠালে জামে ঝরে অবিরত, 

জানি নাই এত স্নিগ্ধ গন্ধ ঝরে রূপসীর চুলের বিন্যাসে

 

পৃথিবীর কোনাে পথে : নরম ধানের গন্ধ—কলমীর ঘ্রাণ, 

হাঁসের পালক, শর, পুকুরের জল, চাঁদ-সরপুঁটিদের

মৃদু ঘ্রাণ, কিশােরীর চালধােয়া ভিজে হাত—শীত হাতখান,

কিশােরের পায়ে- দলা মুথাঘাস—লাল লাল বটের ফলের 

ব্যথিত গন্ধের ক্লান্ত নীরবতা—এরই মাঝে বাংলার প্রাণ; 

আকাশে সাতটি তারা যখন উঠেছে ফুটে আমি পাই টের।

 

আকাশে সাতটি তারা কবিতা | জীবনানন্দ দাশের শ্রেষ্ঠ কবিতা | জীবনানন্দ দাশ

 

আরও দেখুনঃ

 

 

আকাশে সাতটি তারা কবিতা | জীবনানন্দ দাশের শ্রেষ্ঠ কবিতা | জীবনানন্দ দাশ

“আকাশে সাতটি তারা কবিতা | জীবনানন্দ দাশের শ্রেষ্ঠ কবিতা | জীবনানন্দ দাশ”-এ 1-টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন